Badlands: Misfits

By Michael Almereyda

অপরিপক্কতা সর্বাধিক মেধার বিকাশের আগমন বার্তা জ্ঞাপন করে : (টেরেন্স ম্যালিক) তার এই অস্পষ্ট ধারণা ১৯৫০ দশকের শেষ দিকে কুখ্যাত চার্লেস স্টার্কওয়েদার কিলিং একটি বর্ণনার্তক সিরিয়াল কিলারে স্প্রিংবোর্ড হিসেবে ব্যবহার করেন তরুনীর পরোক্ষ রোমান্স মায়া-মমতার প্রকাশের জন্য যা ব্যক্তিগতভাবে অভিনয় করেন মার্টিন শীন এবং সিসসি স্পাসেক। ছবিটিতে ম্যালিকের অর্জিত আবেগময়তার অনেক বিষয় উপস্থাপন করা হয়। আর এর মধ্যে রয়েছে বর্ণনায় এবং চরিত্রে রহস্যময়তার অগ্রগতি, চলচ্চিত্রে নেপথ্যকণ্ঠের উল্লেখযোগ্য ব্যবহার, মানবজাতির সহিংসতা ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পাশাপাশি অবস্থান, আমেরিকান স্বপ্ন ও দুঃস্বপ্নের কাব্যিক অনুসন্ধান। এই ধারণা অসংখ্য প্রতিচ্ছবিতে পরিণত হয় কিন্তু কোনটিই এর আশ্চর্য মহিমার সমান হয় না।

টেরেন্স ম্যালিকের “ব্যাডল্যান্ডস” একটি কোমল, ছন্দময় শ্রেষ্ঠ রচনা যাতে একটি আনন্দের বিলুপ্তি সংযুক্ত রয়েছে যার কার্যভার গ্রহণ করেছিলেন কিট নামের একজন ভদ্র, একরোখা যুবক সাথে ছিল তার নিরুদ্যম, মাধুর্যময় পনের বছর বয়সী মেয়ে বন্ধু হলি, যে গল্পটি বর্ণনা করেছেন। এটি ম্যালিকের বিস্ময়কর প্রথম কাহিনীচিত্র যা ১৯৭৩ সালে সমাপ্ত হয় ফটো উপযুক্ত এক তরুনী জুটি চার্লেস স্টার্কওয়েদের এবং ক্যারিল এন ফুগেট এর আসল জীবন বিকশিত হওয়ার পনের বছর পর। যারা নয় দিনের আক্রমণাত্মক আচরণের ফলে দশ হত্যার ঘটনার সময় জাতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল। স্টার্কওয়েদার এবং ফুগেট কি আমেরিকান মানবাত্মা সম্পর্কে প্রাণঘাতী সহজ সরল বর্ণনা, বিচ্ছিন্নতা ও একাকীত্বের বিশাল পরিসরে ছড়িয়ে পড়া সম্পর্কে, সেসব পথ সম্পর্কে যেখানে মৃত্যু ছায়াময় বিমূর্ততা ধারণ করে, খুব কাছাকাছি বিচরণ করে কিন্তু কখনও আমাদের স্পর্শ করে না ইত্যাদি রূপায়িত করেছেন? ম্যালিক স্বাধীনভাবে এসব প্রশ্ন তুলেছেন কিনা এ বিষয়ে দ্বন্ধ রয়েছে, কিন্তু এর উত্তরে স্টার্কওয়েদারের গল্প ভিয়েতনাম যুদ্ধের সর্বোচ্চ পর্যায়, জাতির গভীর মোহমুক্তির সময় সে তার দর্শকদের এমন জায়গায় পরিচালিত করেন যা তখন এড়িয়ে যাওয়া কঠিন হতো এবং অনুশোচনার যন্ত্রণা বহন করত। ১৯৭৫ সালে “সাইট এন্ড সাউট” এবং “পসিটিফ” সাক্ষাৎকারের জন্য সম্মুখীন হয় যখন “ব্যাডল্যান্ডস” ইউরোপে মুক্তি পায়, ম্যালিক বর্ণনা করেছেন “কিভাবে তিনি চেয়েছিলেন ছবিটি বর্তমান সময়ের বাহিরে রূপকথার গল্পের মত প্রতিষ্ঠা করতে।” এবং তাই সে মৃত্যু ভয়ের একটি চলচ্চিত্র প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা করেন যা আকর্ষণীয়ভাবে একজন তরুণী দ্বারা বর্ণনা করা হয়, যেখানে মৃত্যুস্তূপের চিত্র প্রাণবন্তভাবে মঞ্চায়িত করা হয়, অত্যন্ত বিচক্ষণতার সাথে প্রায় নিরুত্তাপভাবে।

Badlands_Screenshot 1
তিনি চিত্রায়িত করেন স্টার্কওয়েদারে বাস্তব চিত্র যেমন- একটি ঝড়ের আশ্রয়কেন্দ্রে এক জোড়া যুবক যুবতীর হত্যা, একজন ধনী লোকের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া কিন্তু হত্যাকারীর কুরুচিপূর্ণ অর্জনের মুখে পতিত হওয়া। (দুই বছরের শিশু এবং সত্তর বছরের এক বৃদ্ধের জবাই, একটি ধর্ষণের চেষ্টা, দুটি কুকুরের হত্যা) ম্যালিক সুস্পষ্টভাবে সরলতার প্রতি আগ্রহী ছিলেন, যা তার একটি মেনে চলার বিষয়ে পরিণত হয়েছিল এবং দেখিয়েছেন সরলতা কিভাবে ক্রোধ এবং অসংযত, অনিয়ন্ত্রিত ত্রাসে পরিগনিত হয়। সে তার দুই অভিনেতাকে অভেদ্য পবিত্রতা, নমনীয়তা, হত্যা বিরোধী আবহাওয়ায় চিত্রায়িত করেছিলেন, যা স্টার্কওয়েদারের গল্পের ক্ষেত্র এবং পূর্ববর্তী প্রত্যেকটি লাভার্স- অন- দা রান ছবি ও তার সাথে সুস্পষ্ট জনপ্রিয় ১৯৬৭ সালের ছবি “বনি এবং ক্লাইড” থেকে আলাদা। ব্যাডল্যান্ডের অন্যতম একটি অবদান, সময়কে মূল্যায়ন করা যা সঠিক অভিনেতা চিত্রায়নের ক্ষেত্রে পূর্ণতা অর্জন করে : মার্টিন শীন একজন স্বল্পভাষী হত্যাকারী হিসেবে এবং সিসসি স্পাসেক রোগা স্কুল বালিকা যে তাকে বিবেচনা করে “তার দেখা সবচেয়ে সুদর্শন ব্যক্তি হিসেবে”। পূর্বে কখনোও অভিনেতাদের মূখ্য ভূমিকার চিত্রায়িত করা হত না; তাদেরকে স্নেহপরায়ন যুবক দেখানো এবং তার লাজুকতা, অভিনিত আত্মবিশ্বাসতাদের চলাফেরা এবং আচরণ সম্পর্কে সবকিছু নিজেকে সবকিছুর যোগ্য মনে করা ইত্যাদি ছবির অব্যবস্থিত ক্ষমতা যা চরিত্র থেকে বিস্তৃত হয় সে হিসেবে বিবেচিত যা আন্তরিকতা এবং মোহনীয়তা প্রদান করে। “হলির” চরিত্র দিয়ে গল্পটি শুরু এবং শেষ হয়। ঘনিষ্ঠতা এবং নিরাসক্তির মিশ্রণ, ব্যাঙ্গাত্মকতা এবং দিবা স্বপ্ন তার আওয়াজে প্রতিষ্ঠিতই হচ্ছে ছবিটিতে সর্বব্যাপী সুর যেখানে স্পাসেকের বিড়ালের মত নীরবতা ও শীতলতার উপর রয়েছে তার যৌবনাম্মুখতার প্রবল আগ্রহের অনুভূতি এবং ভাবপ্রবনতাভিত্তিক উপন্যাসের ভাষা। এখানে কিছু আবেগপূর্ণ গদ্যাংশ্যের পংক্তি রয়েছে- “ফীডলটের দুর্গন্ধ এবং শ্লেষ্মায় সে মনে করতে পারে আমি পূর্বের রাতে দেখতে কেমন ছিলাম” কিন্তু ম্যালিক হলিকে আরো গভীরে পৌছতে, খুব বিখ্যাতভাবে গর্ভাবিনয়ে অবিচলিত থাকতে যেখানে তাকে দুটি ফটোগ্রাফের মধ্যে একটিকে বেচে নিতে হয়, যেখানে সে তার নিজস্ব নশ্বরতা চিনতে পারে এবং সুযোগ ও পছন্দের এককেন্দ্রভিমুখীতার চিন্তনে ব্যস্ত থাকতে পারে যা তাকে বর্তমানে উপস্থাপন করতে পারে এবং ভবিষ্যতের দিকে নিয়ে যেতে পারে ইত্যাদি বিষয়ে উপস্থাপন করেন। আমি এই মুহূর্তে কি করতাম যদি কিটের সাথে আমার দেখা না হত; অথবা যদি কাউকে হত্যা না করত এবং এই মুহূর্তে যদি আমার মা কখনও আমার বাবার সাথে সাক্ষাৎ না করত যদি সে কখনও মারা না যেত? এবং সে লোকটি কেমন যাকে আমি বিয়ে করতে যাচ্ছি? এই সময়ে সে কী করছে? কাকতালীয়ভাবে কি সে আমার সম্পর্কে ভাবছে? যদিও সে আমাকে চেনে না? ম্যালিক আমাদের একটি বেদুইনের ছবি দেখিয়েছেন বন্ধুক ধরা অবস্থায় বিখ্যাত স্ফিংকস এর নিচে যেটি পাথরের ভাঙ্গা টুকরোর পিন্ড দেখে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল এবং অনুসৃত হয়েছিল ঊনিশ শতকের বিবর্নতার দ্বারা চলমান অস্তিত্ব বিহীন অসচেতনতার মাধ্যমে- হারিয়ে যাওয়া ইতিহাসের একটি চলমান সারিবদ্ধ প্রক্রিয়া, অজানা ভাগ্যের সন্ধানে। এর ফলাফল জসেফ কর্নেল বঙ্ অথবা বর্গেস গল্পের মতোই মনোমুগ্ধকর এবং সময়ের সাথে অনুভূতি এবং তত্ত্ব বিদ্যার রহস্য বাকি ছবিটিকে মনোমুগ্ধকর করে তুলে। যখন ম্যালিক হলিকে গল্পে অতিরঞ্জিতভাবে উপস্থাপন করেছিলেন, তখন কিট প্রকাশিত হয়েছিল জটিল, রহস্যময় চরিত্র হিসেবে। “সাইট এবং সাউন্ড” এর সাক্ষাৎকারের সময় ম্যালিক কিটকে এমন একজন ব্যক্তি হিসেবে বর্ণনা করেছেন যে কিনা তিক্ততাপূর্ণ, ভুক্তভোগী এবং একটি “বন্ধ বই”। স্টার্কওয়েদারের মত তিনি ছিলেন নারসিসিসটিক, জেমস ডীনের মত আত্মবিশ্বাসতার সহিত ভাস্কর্যময় চুল এবং তার চোখের ভিতর ছিল দূরের হাতছানি। আমরা তার দেখা পাই যখন সে আবর্জনা সংগ্রহের চাকুরী থেকে বরখাস্ত হচ্ছিল, কিন্তু সে বাকি ছবিটি অতিবাহিত করেন, অপ্রয়োজনীয় মূল্যবান সম্পদের অন্বেষনে, তত্ত্বাবধানে, প্রাপ্তিতে, অন্যের বাড়িতে অবস্থিত নানা অপ্রয়োজনীয় উপাদান পরিত্যাগ করার মাধ্যমে। এটি কোন তুচ্ছ বিষয় নয় যে, হলির অননুমোদিত বাবা একজন সাইনবোর্ড লেখক, একজন মানুষ যে গ্রাহকদের কাছ থেকে পাওয়া ওয়াদাগুলি খুব ভালভাবে পরিচালনা করে যদিও সে ওয়াদাগুলি মূল্যহীন হতে পারে, কিন্তু কিটের মনে কখনও বাতিল হয় না। তার বাবাকে নিষ্ঠুরভাবে গুলি করে ঘর জ্বালিয়ে দিয়ে শব দেহ রান্নাঘরে ফেলে চলে যাওয়ার পর সে আবদ্ধ ম্যাক্রফিল্ড প্যারিস প্রিন্টকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় তার গাছের বাড়িতে যা সে হলি এবং তার জন্য বনের মধ্যে তৈরি করেছিল। সে ছোট প্রবেশাধিকারের কাগজ এবং নানা জিনিস ভালবাসার বর্ণনাকারক লেখা দিয়ে সমষ্টিগত করেন বেলুনের সাথে সংযুক্ত করে উঁচুতে একটি বাক্রে রাখেন। অনেক কর্মচারী ধনী লোকের বাড়ি থেকে ভাগ্যের উন্নতি করেন (সাথে একটি পানামা টুপি মৃত বাবার মত) এবং যখন অস্থিরতা সাউথ ডাকুটায় বিরাজ করে, কিট তুচ্ছ জিনিসপত্রের জলাঞ্জলির বিষয়কে অতিরিক্ত কষ্ট হিসেবে নিত। (স্টেরেপটিকানের ছবির বেলায়ও)। এই দুই মত প্রাকশিত হয়- অন্য লোকের অপ্রয়োজনীয় জিনিসের প্রতি ঘৃণা দেখানোর জন্য এবং নিজের জীবনকে স্মরণাতীত করার জন্য- চলমান মুখবন্ধনীর সংখ্যা যার মধ্যে কিট, এতে বিতর্কিত যে ম্যালিকসের মানবজাতির পরিচিতির অধিকৃত বস্তুর এবং বেষ্টনকৃত ধাতুর পৃথিবীর ক্ষনস্থায়ীত্বের উপর সন্দেহবাদ প্রকাশিত হয়। শীন দেখায় কিটের অঙ্গভঙ্গিমা কত স্বচ্ছ, একগুঁয়ে এবং অস্থায়ী হতে পারে এবং চরিত্রটিও সুস্পষ্টভাবে দুর্বল এবং একটি অসন্তুষ্ট আত্মা যা মাঝে মাঝে নষ্ট হয় পরিষ্কার ক্ষিপ্রতার ফলশ্রুতিতে। ম্যালিক হলির ধারণা সমর্থন করে যে কিট বিশেষভাবে লম্ঙ্ট নয়, শুধুমাত্র “ক্ষিপ্রতা প্রকাশের ক্ষেত্রে খুবই আগ্রহী” এবং “আবদ্ধ”। তার আকস্মিক, প্রচন্ড, অসাড় আবেগপূর্ণ বাক্য চিত্রায়িত হয়েছে ব্যাপক সম্মানপূর্বক দৃশ্যের সহিত, যেখানে আমরা কোন শব্দ শুনি না। বলা, লিখা অথবা চিন্তার ক্ষেত্রে ভাষার অপর্যাপ্ততা পরিমাপ করা হয় পৃথিবীর নীরব উজ্জ্বলতার বিরুদ্ধে যা একটি উপবিষয় হিসেবে ছবিটিতে বিরাজ করে। (এবং ম্যালিকের পরবর্তী কাজ গুলোতেও) কিট যখন হলিকে বলে “আমি কিছু বলার পেয়েছি অনুমান কর, আমি সেই পথেই ভাগ্যবান” উক্তিটি অন্য একটি চলমান কৌতুকের ক্ষেত্রে উত্তেলিত হয়, যেহেতু কিটের মৃদুস্বরে কথা বলা একটি দৃঢ়, ক্ষীণ কথার থেকে মুক্তি এবং ধারণা গ্রহণ যা খুব বলিষ্ঠভাবে প্রদর্শিত হয় ধনী লোকের বাড়িতে অবসরের সময় যখন সে আত্মসচেতনভাবে টেপ রেকর্ডারে কথা বলছিল, সামান্য একটি বিষয় সম্পর্কে শ্বাস-প্রশ্বাসে প্রকাশিত আকস্মিক ক্রোধের মাধ্যমে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সুবিধার জন্য : “স্বল্প মানুষের মত বিবেচনা কর, কিন্তু অধিকাংশের মতের সাথে একমত হওয়ার চেষ্টা কর, যা একসময় গৃহীত হবে। ছবি শেষ হওয়ার সাথে কিটের নিজস্ব পৌরণিক ধারণা তারকাখ্যাতির মর্যাদা সম্পূর্ণভাবে মিশ্রিত হয় হত্যার মাধ্যমে। সে কোন অপরাধ তালিকাভুক্ত করেনি এমনকি তার চুড়ান্ত পরিনতির মুহূর্তেও সে নিজেকে অসাড় গর্বিত লোক হিসেবে উপস্থাপন করেছে। “ক্যারোথার্সের নামে আমি লোকের উপর গুলি চালাই যখন তখন। এটা নয় যে আমি পদকের অধিকার রাখি।” অপরপক্ষে, স্টার্কওয়েদার আমাদের একটি মতের উপর চালনা করেন, অন্ধকার স্বতঃসিদ্ধ সত্য : “মৃত ব্যক্তিরা সবাই একই পর্যায়ের।” আমাদের যুগে শুধুমাত্র প্রায় সূক্ষ্ম অনুপ্রবেশের শোভনের প্রতি তীক্ষ্ম দৃষ্টিই নেই, বরং আরো আছে ক্ষিপ্রতার প্রকৃতির উপর অনুভূতি যা তাদের এগিয়ে নিয়ে যায় এবং অনুসরণ করে। (ফ্লানেরী ও’ কনর, “এ রিসনাবল ইউজ অভ দা আনরিসনাবল।) কিট ক্যারোদার এবং চার্লেস স্টার্কওয়েদার উভয়ই সমস্যায় জর্জরিত হয়েছিলেন, মিসফিট সে দোষী যে, আবহাওয়া এবং যীশু খ্রিষ্ট সম্পর্কে কথা বলেছিলেন ফ্লানেরী ও কনরের “এ গুড ম্যান ইজ হার্ড টু ফাইন্ড” এ বেপরোয়া হত্যাকান্ডে সমাপ্তির সভাপতিত্বে যা অনুষ্ঠিত হয়েছিল সর্বাধিক রহস্যময় প্রশংসিত এবং ব্যাপকভাবে রচিত ছোট গল্পের চয়নিকায় আমেরিকার মধ্য শতাব্দীর রূপকথায় যার প্রথম প্রকাশ ১৯৫৩ সালে। “মিসফিট” একটি অমায়িক হত্যাকারীর/ দার্শনিকের ধারাবাহিকের নমুনা, একটি মনগড়া দুঃস্বপ্ন যা অদ্ভুতভাবে স্টার্কওয়েদারকে পূর্বে কল্পিত বিষয় হিসেবে উপস্থাপন করে। (তারা উভয়ই তারের চশমা পরিধান করেছিল)। ও’ কনরের গল্প সরাসরি ম্যালিকের উপর কোন প্রভাব ফেলে না, কিন্তু এটি একটি অস্বাভাবিক ব্যাপার হত যদি ছবির পরিচালক কখনও এটি না পড়ত। মিসফিটের মত, যে কোন ক্ষেত্রে, কিট নিজেকে বিরক্তিকর, পৃথিবীতে কাজের আত্মপ্রসন্নতা থেকে দূরে রেখেছে এবং সে অসংগত শান্তিকে বেছে নিয়েছে- খুনের কাজে জড়িত হওয়ার পূর্বে যেমন- “এখানে আমার একটি বন্দুক আছে, জনাব” মিসফিট খুব স্পষ্টভাবে লোভের দ্বারা সঞ্চালিত হয়, পৃথিবীর অযৌক্তিকতা প্রকাশে, মানবজাতির যন্ত্রনার প্রহেলিকার উপর তীব্র লালসার দ্বারা, নিয়মিত অপরাধ এবং শাস্তির মধ্যে অসাদৃশ্যতা- কিন্তু কিট প্রকাশ করেছে একটি সমান্তরাল অস্থিরতা এবং ঘৃণামিশ্রিত ক্রোধ এবং সে হলির সাথে পলায়ন, মুক্তি এবং শ্রেষ্ঠতার স্বপ্নে ধনশালী। ম্যালিকের ক্যামেরা এই স্বপ্নকে অনুমোদন দেয়, স্কাইস পরিপূর্ণতা পায় জলন্ত সূর্যডুবার সাথে, নরম মেঘ, আলোর ঝলকানি ইত্যাদি প্রকাশের মাধ্যমে। সঙ্গীতের মূল বিষয়ের পুনরাবৃত্তি- কার্ল ওরফের থেকে একটি প্রফুল্ল অনুচ্ছেদ, এরিক সাথির থেকে একটি সতৃষ্ণ ক্ষুদ্র বিষয়- তারপর গল্পটি অবস্থিত “কিছু জাদুকরী ক্ষেত্রে” এমন একটি জায়গা যেখানে হলি উচ্চকণ্ঠে জেগে উঠার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল। এখানে একটি হাসাত্মক ব্যাঙ্গরূপ এই ক্ষেত্রে অবস্থিত যেহেতু কিট এবং হলি উভয়ই বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতিতে অবাঞ্চিত বিবাহের দিকে ঝুকে পড়েছিল। একটি বিশেষ নিরুৎসহজনক বিষয় ছবিতে প্রকাশ পায় যখন কিট অকারণে তার একমাত্র বন্ধুকে গুলি করে এবং হলিকে হত্যা করতে তৎপর হয় এবং বলে, “আমি কোন রকম লজ্জা এবং ভয় অনুভব করি না, কিন্তু তোমার সেখানে বসে থাকার মত এবং গোসলখানায় প্রবাহিত হওয়া পানির মত প্রোৎসাহিততা অনুভব করি।” একইরকম বিশ্বব্যাপী ধারণা ম্যালিকের অনুভূতিতেও স্বাক্ষরিত যেখানে পৃথিবীর উজ্জ্বলতা আচ্ছন্ন করে গতানুগতিক চিহ্নের অথবা ভয়ের, তুচ্ছতা অথবা মূর্খতার তুলনায়। ম্যালিক সম্ভবত ও’ কনরের ধারণার সাথে একমত হবে যে, গল্পের মধ্যে ক্ষীপ্রতা “কখনও শেষ হয় না নিজে নিজে” এবং পৃথিবীর ক্ষীপ্রতার গল্পের “মৃত্যু অনেক চরিত্রের সংযোজন করে চিরস্থায়ীত্বের ধারপ্রান্তে” এমন একটি জায়গা যেখানে সবাই কে পৌছাতে হয় যথেষ্ট কম সময়ে, এর জন্য খুব ভালভাবে প্রস্তুতি গ্রহণ ছাড়াই। যেহেতু ম্যালিক কিট এবং হলিকে মৃত্যুর খুব কাছাকাছি নিয়ে আসেন, উত্তর আমেরিকার বিস্তীর্ণ প্রান্তর এবং হলির উপর সর্বোচ্চ উচ্চ উদাহরণের প্রয়োগের জন্য উচ্চ স্বরে, তার মোহমুক্তির ধারণা বিশ্বাস করার জন্য, স্থলভাগের নালা বড় পাত্রের মত ইত্যাদি ফুটিয়ে তোলার মাধ্যমে এবং আমরা ব্যাডল্যান্ডকে মনে করতে পারি, এমন একটি বাহিনী যেখানে শিশুসুলভ নৈতিকতা হ্রাস পাওয়ার প্রবনতা ফুটে উঠেছে। কিন্তু আমরা কখনও একটি নিরাসক্ত মুহূর্তে পৌছাতে পারিনি; ছবিটির পরিচালক তার চরিত্রগুলোর মধ্যে কোমলতা ধরে রেখেছে এবং তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন অত্যন্ত ক্ষীপ্র চরিত্র হিসেবে।

[embedplusvideo height=”420″ width=”612″ editlink=”http://bit.ly/1aPhV5p” standard=”http://www.youtube.com/v/qKykxE7CBbc?fs=1″ vars=”ytid=qKykxE7CBbc&width=612&height=420&start=&stop=&rs=w&hd=0&autoplay=0&react=1&chapters=&notes=” id=”ep9194″ /]

তিনি এই প্রেমিকযুগলের একটি আবেগময়ী পরিসমাপ্তি টানেন যা ধীরে ধীরে দু’ধাপে আলোকিত হয় একটি গাড়ির হেডলাইটের মাধ্যমে ন্যাট কিং বালির অকারণ আওজের সাথে যা ধীরে ধীরে স্ফীত হয় রেডিওতে এবং সফল দৃশ্যে পরিণত হয়- একধরনের আশীর্বাদ হিসেবে যখন চিরস্থায়ীত্বতা অপেক্ষমান। ছবিটি পুনঃবিবেচনা করে আমি বিস্মিত হই কিভাবে এটি হলির মৃত্যুর পর শক্তি সঞ্চয় করে, আশ্চর্যজনকভাবে নিয়ে যায় শব্দহীন পরিসমাপ্তির দিকে যেখানে কিট অবাঞ্চিত হয় তার শেষ নিশানার ফলে। কিট হঠাৎ করে মারমুখী নায়কের চরিত্রে উপস্থাপিত হয়, পুলিশকে পেছনে হটানোর জন্য সে বেপরোয়াভাবে গুলি এবং গাড়ি চালায়। (গাড়ি বিস্ফোরণ এবং ব্যাপক ধুলো ধূসরিত মেঘের অস্পষ্টতার সাথে এই পরিস্থিতিটি শ্বাসরুদ্ধকার হয়ে উঠে।) কিন্তু এই হঠাৎ গোলাগুলির দৃশ্যটি উপস্থাপিত হয় এক নিশ্চুপ বেপরোয়া মুহূর্তের মধ্যস্থতার বিরুদ্ধে, অন্যতম এক বাগপটুতা যা প্রতীয়মান হয়েছে অগুরুত্বের সাথে এবং এক মর্মভেদী দৃশ্যের মাধ্যমে এই ছবিতে। কিট এখন একাকী একটি গ্যাস স্টেশনে ফুয়েল ভরার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে, একটি পেপসি- কোলার বড় টুপি যা তার থেকে বড় এর সাইন ফেচারিংয়ে হীনভাবে তোষামদ করে এবং হলির সুটকেস খালি করা শুরু করেছে এবং পোষাকগুলি নিক্ষেপ করছে একটি ময়লা ফেলার ঝুড়িতে। তারপর সে তার সাময়িকী খুঁজে পায়- বর্ণনার কাছাকাছি উৎস যা আমরা শুনেছি এবং সে না থেমে এবং না পড়ে থাকতে পারে নি। সে কী বলে এবং চিন্তা করে? কেউ কি তাকে কখন বুঝেছে বা ভালবেসেছে? অথবা সে কি শুধুমাত্র তাকে নিয়েই লিখছে? কিট বইটি গাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়- অতি ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রাতিকর জিনিসও সে সংরক্ষন করার বাধ্যকতা অনুভব করল- যখন সংকটাবস্থা প্রকাশের সম্মতি প্রকাশ করছিলেন সুটকেসটিকে নির্দেশ করে যা হলির ছিন্নবিচ্ছিন্ন শৈশবের ধ্বংস নির্দেশ করে : “বাতিল জিনিসগুলির মধ্যে যা চাও সবই তোমার।” উঁচু গাছের উপর বয়ে যাওয়া বাতাসের শব্দ সে শুনতে পারে দীর্ঘ পরিতৃপ্তির নিশ্বাসের মত। (এ গুড ম্যান ইজ হার্ড টু ফাইন্ড) ম্যালিক টেক্রাস তেল কোম্পানীর একজন কার্যনির্বাহীর ছেলে-বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্ত দানগ্রহীতার জীবন বৃত্তান্ত অনুমিত, কিন্তু তার গ্রীষ্মকালীন কাজ ছিল হার্ভাড থেকে দূরে যার সাথে যুক্ত ছিল অসৎভাবে সংগৃহিত তেল এবং খাদ্যাদি রেলের রাস্তায় সিমেন্টের ট্রাক চালিয়ে নেওয়া। রোডস স্কলারশীপে মনোনীত হওয়ার পর সে অঙ্ফোর্ডের ম্যাগডেলেন কলেজে দর্শনে পাড়শোনা করেন, কিন্তু তার উপদেষ্টার সাথে ঝগড়ার ফলে তাকে কোন সম্মানসূচক ডিগ্রী ছাড়াই চলে আসতে হয়। “লাইফ” এবং “নিউ ইউর্কার” পত্রিকা অসংযুক্ত সাংবাদিকতার জন্য এমন কাউকে অনুসরণ করছিল যে কিনা মিট এ দর্শনে এক বছর শিক্ষকতা করেছে, কিন্তু ম্যালিক বদ্ধপরিকর ছিল যে, “সে ভালো শিক্ষক নয়”। ১৯৬৯ সালে সে আমেরিকা ফিল্ম ইনস্টিটিউটের উদ্বোধনী ক্লাশে প্রবেশ করেছিল। সে “ল্যানটন মিলস” নামে একটি হাস্যাত্মক নাটক শেষ করেছিলেন এবং হ্যারি ডীন স্ট্যানটন এর সাথে নিজেকে একজন অভিনেতা হিসেবে প্রকাশ করেছিলেন যে কিনা পুরানো ধারার কাউবয় ঘোড়ার পিঠে চড়ে একটি আধুনিক ব্যাংক লুট করেছিল এবং হলিউডের দৃশ্য লেখক হিসেবে মূল ভূমিকায় প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে যখন স্কুলে ছিল, সংযুক্ত কাজ হিসেবে সে ডার্টি হ্যারির সাথে মার্লন ব্রানডোর সম্পৃক্ততার অনুবাদের কাজে লিপ্ত ছিল। যেহেতু ম্যালিক অন্য এক সাক্ষাৎকারে যাচিত হয়েছিলেন যা ১৯৭৪ সালে দৃশ্যমান হয়েছিল বর্তমানে অপ্রচলিত ফিল্মমেকার’স নিউজলেটারে” “ব্যাড ল্যান্ড” ছিল সত্যিকার অর্থে একটি স্বাধীন ব্যবসা যাতে অর্থায়ন হয়েছিল ব্রডওয়ে নাটকের মত”, পাশাপাশি অর্থ সংগ্রহ করা হত এমন বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে যারা একে অপরকে জানতও না। লেখক, পরিচালক, প্রযোজক কোন বেতন গ্রহণ করেননি এবং তাদের দৃশ্য লেখনীর মাধ্যমে উপার্জিত অর্থ থেকে $২৫০০০ চাঁদা দিত খুব কষ্টের মাধ্যমে বড় $৩০০০০০ বাজেটের আর্থিক যোগানের অর্ধেক সংগ্রহে। এড প্রেসম্যানের ভদ্রতার সৌজন্যে একটি মোটামুটি সংখ্যা যোগাড় হয়, যে কিনা খুব তাড়াতাড়ি আমেরিকার মুক্তধারার চমৎকার উচ্চকাখী ছবির উদ্বোধন করতে যাচ্ছিলেন যার অর্থায়ন নির্ধারিত হয়ে ছিল তার পারিবারিক খেলনার ব্যবসা থেকে। কিন্তু “ব্যাডল্যান্ডের” রঙ্গ মঞ্চে অভিনয়ের ইতিহাস খুব আশাদায়ক ছিল না। ম্যালিক তার দলের লোকদের সাথে ঝগড়া করেছিলেন এবং একটি সন্তোষজনক সহযোগিতায় পৌঁছানোর পূর্বেই দুজন ক্যামেরাম্যানকে স্থানান্তরিত করেন, তার বন্ধু স্টেভান লারনারের সাথে। আগুনের দৃশ্যটি খুব সুন্দরভাবে চিত্রায়িত হয় ছবির শেষ দিকে যা নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে গিয়েছিল কলা গ্রুপের এক অনভিজ্ঞ সদস্যের ম্যাচ জ্বালানোর ফলে এবং একটি আকস্মিক বিস্ফোরণের সৃষ্টি হয়েছিল যা একটি ক্যামেরা নষ্ট করেছিল এবং একজন সুপারভাইসরকে মারাত্মকভাবে আহত করেছিল। “আমাদের দল খুব তাড়াতাড়ি চার পাঁচজন সদস্যে পরিণত হল,” ম্যালিক পুনরায় গণনা করেন। “আমরা মালিক ছাড়া এক ব্যক্তিগত সম্ঙ্ত্তিতে দৃশ্য পরিচালনা করছিলাম। পুলিশ আইসারএস এর সাথে আমাদের খুঁজচ্ছিল। আমরা দৌড়ের উপর ছিলাম। একটি অকেঁজো ক্যামেরা নিয়ে চিত্রায়ন, কোনো জিনিসকে উপরে দৃশ্যায়ন, অপ্রত্যাশিত শব্দে পরিণত করে, যা অভিনেতাদের কথোপকথনের সত্তর ভাগ পুনঃরাবৃত্তির প্রয়োজন ছিল। “আমাদের যথেষ্ট অর্থ ছিল না। আমি চিত্রায়ন বন্ধ করেছিলাম দৃশ্য নাটক লেখার জন্য এবং তা প্রায় এক বছর সময় লেগেছিল।”
Badlands_Screenshot 2

দুর্ভাগ্য এবং বিলম্বতা এই ক্ষেত্রে প্রায় প্রতিদিনের কাজ ছিল নতুন পরিচালকের জন্য, কিন্তু কিভাবে প্রায় ক্ষেত্রেই ছবিটি প্রদর্শিত হয় খুব পরিপূর্ণভাবে, সুরুচিসম্পন্নভাবে এবং যথাযথভাবে, খুব নিখুঁত এবং আত্ম-অন্তর্ভুক্তি দ্বারা? ম্যালিকের প্রথম আত্মপ্রকাশ বিবেচনা করা যায় মার্টিন স্করসেসের “মীন স্ট্রীটস” এর সাথে যা অন্য একটি চমৎকার পরিচালিত ছবি যা “ব্যাডল্যান্ডের” মতই ১৯৭৩ সালে নিউ ইয়র্ক ফিল্ম ফেস্টিবলে প্রথম প্রদর্শিত হয়। “মীন স্ট্রীটস” একজন যুবকের প্রতীয়মান কাজ যা পরিচালিত হয় অপরিপক্ক শক্তি এবং চাঞ্চল্য দ্বারা, ছবিটি ছোট ছোট অংশে বিভক্ত এবং একটি অস্পষ্ট পরিণতিতে আবদ্ধ, যেখানে “ব্যাডল্যান্ড” উপস্থাপিত হয় গর্বিত কোমলতা এবং ভারসাম্যতার সাথে যা আপাতদৃষ্টিতে পবিত্রতার ধারণা দেয়। এটা যেভাবেই হোক উপযুক্ত যে, স্করসেস নিজেকে “মীন স্ট্রীটস” এ কুখ্যাত হত্যাকারী হিসেবে চিত্রায়িত করেছেন এবং তাই ম্যালিক “ব্যাডল্যান্ডে” একটি অসম্মানিত উপস্থিতির চিত্রায়ন করেছেন একজন পরিদর্শক স্থপতি অথবা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে, যে উপস্থিত হয় একজন বড় সহচর হিসেবে ভারী অবয়বের সাথে ও বাদামী চোখের খোঁজে এবং একজনের বাহুর নিচে একটি আবর্তিত প্রাথমিক পরিকল্পনা গুটানোর জন্য। যখন কিট ধনী লোকের বাড়িতে নিজেকে সরিয়ে নিয়ে যায়, পরিদর্শকেরা তখন মাতালতায় বিমূর্ত ছিল এবং একটি বিষয় লেখার পূর্বে কিছু সন্দেহভাজন শব্দ উচ্চারণ করছিল এবং তার পরিকল্পনা ও অস্পৃষ্ট জীবন অজানাভাবে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছিল। কাল্পনিক এটি অত্যন্ত ভীতিজনকভাবে সংযত, প্ররোচিত অভিনয় এবং খ্যাতির যোগ্য চলচ্চিত্র নির্মাতার দৃষ্টিতে তাকে কিউক্রিকিয়াল হাই রোডে নিয়ে যাওয়ার পূর্বে এক অনিয়মিত মেধাবী পেশার সূত্রপাত ঘটে আটাশ বছর বয়সে এবং নিরবতা ও অস্পষ্টতার কঠিন জালে পরাভূত হয় যেখানে, মূল্যবান পাথর, সাক্ষাৎকার, আলোকচিত্র এবং এমনকি ক্ষুদ্র জনমতের প্রবেশাধিকার ছিল না যা কিনা উৎপন্ন হয় একটি জানা মানবজাতির উৎস থেকে। “পর্দার পিছনের মানুষের প্রতি কোন মনোযোগ দিও না।” এই নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে আমরা আশা করতে পারি তার জীবন নির্বাহের জন্য প্রয়োজনীয় কার্য সম্পাদনে এবং চলচ্চিত্র রূপায়নে এক ঐন্দ্রজালিক ছোঁয়া অনুমিত করবে। “ব্যাডল্যান্ডের” এখানেও সে দিনের মত স্পষ্ট। একজন চিন্তিত সাধারণ মানুষের চরিত্র রূপায়ন আবর্তিত প্রাথমিক পরিকল্পনায় এই সন্ধিক্ষণে আমাদের এবং আমাদের মাধ্যমে পেছনে ফিরে তাকালে দেখা যায় হলির দেহকাঠামোর ভেতর আবদ্ধ আত্মার মত ম্যালিকের ভালো কাজগুলোর মধ্যে অভেদ্য রহস্যময়তা এবং চমৎকারের মত যা উপস্থিত হয় অদৃশ্য হওয়ার জন্য এবং ভবিষ্যতের অন্তরঙ্গতা প্রদানের জন্য যা আমাদের সম্পূর্ণরূপে গ্রাস করবে।

No comments yet.

-যা কিছু বলার-