ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলোজি

শুরুর কথা:
১৮৫৯ সালে ম্যাসাচুসেটস জেনারেল কোর্টে বোস্টনের ব্যাক বে তে সদ্য ভরাট করা জমি “Conservatory of Art and Science” এর জন্য প্রস্তাব করা হলে তা নাকচ করা হয়। কিন্তু উইলিয়াম বার্টন রজার্স এর একটি প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে ১০ই এপ্রিল ১৮৬১ সালে ম্যাসাচুসেটস গভর্নর কতৃক Massachusetts Institute of Technology একটি চার্টার সাক্ষরিত হয়। রজার্স এমন একটি প্রতিষ্ঠান গড়তে চেয়েছিলেন যাতে করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির খুব দ্রুত উন্নয়ন সাধিত হয়।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিল্পোন্নয়নের ধারা তরান্বিত করতে প্রতিষ্ঠা লাভ করে এম আই টি। পলিটেকনিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আদলে ল্যাবরেটরী সহ এটি স্থাপিত হয়। MIT শিল্পোন্নোয়নের সাথে সাথে শিক্ষর্থীদের সমন্বয় সাধন করতে প্রথম দিকে ফলিত প্রযুক্তির স্নাতক ও স্নাতোকোত্তর বিষয় সমূহের উপর জোর দেয়। ১৯৩০ সালে মৌলিক বিজ্ঞান বিষয় সমূহের সংস্কার সাধিত হয় কার্ল কম্পটন ও ভ্যানভার বুশ এর সহযোগিতায়। MIT ১৯৩৪ সালে অ্যাসোসিয়েশন অব আমেরিকান ইউনিভার্সিটিস নির্বাচিত হয়।
এমআইটি’র ছাত্র ও শিক্ষক সম্মিলিতভাবে ৭৮টি নোবেল পুরস্কার এবং ৫০টি ন্যাশনাল মেডেল অব সায়েন্স অর্জন করেছেন।
এক নজরে: MIT
MIT maintaining its position as the top-ranked university worldwide.
Massachusetts Institute of Technology
Motto: “Mind and Hand”
ক্যাম্পাস :
১৬৮ একর, কেমব্রিজ, ম্যাসাচুসেটস।
১৯ টি আবাসিক হল
২৬ একর খেলার মাঠ

মোট এমপ্লয়ী প্রায় ১১০০০(ফ্যাকাল্টি সহ)
ফ্যাকাল্টি ১০২২ জন
অন্যান্য টিচিং স্টাফ ৭৩১ জন।
আন্ডারগ্রেড: মেজর প্রোগ্রাম ৪৬ টি, মাইনর প্রোগ্রাম ৪৯ টি।
Students, Academic Year 2012–2013
Total: 11,189
Undergraduates: 4,503
Women: 2,038 (45%)
Minorities: 2,250 (50%)
Graduate students: 6,686
Women: 2,084 (31%)
Minorities: 1,338 (20%)
International Students, 2012–2013

Undergraduates: 448
Graduate students: 2,656
Exchange, visiting, special students: 414

No comments yet.

-যা কিছু বলার-